• মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৯:১০ অপরাহ্ন
Headline
রাত পোহালেই লোহাগাড়ার তিন ইউনিয়নে নির্বাচন চকরিয়ায় শতবর্ষের মহাশ্মশান ময়লা আবর্জনা কবলে ভাসমান অসহায় মানুষের পাশে রেজাউল করিম চৌধুরী লোহাগাড়ার তিন ইউনিয়নে নৌকায় ভোট চাইলেন ছাত্রলীগ ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগকে কেউ হারাতে পারবে না: মেয়রপ্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী কক্সবাজার জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রনজিত দাশ এর জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানালেন তপন দাশ কক্সবাজার জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রনজিত দাশ এর জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানালেন তপন দাশ চকরিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাচনে জাহেদ চৌধুরী সভাপতি ও মিজবাউল হক সম্পাদক নির্বাচিত খুটাখালীতে ডাম্পার-যাত্রীবাহি বাস মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত খেলাধুলা শারীরিক সুস্থতা ও মনের প্রফুল্লতা বাড়ায়ঃ এমপি কমল

চকরিয়ায় লক্ষ্যারচরে বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার নির্মাণ কাজে বাঁধা, হামলায় আহত ২

Reporter Name / ১২৪ Time View
Update : বুধবার, ৭ অক্টোবর, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক,চকরিয়া

চকরিয়া উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের আমজাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিজস্ব জায়গায় শহীদ মিনার নির্মানকে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় পিতা পুত্রসহ দুইজন আহত হয়েছে।

বুধবার (৭ অক্টোবর) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ছিকলঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নুরুল আবছার সওদাগর ও তার পুত্র নুরুল আজিম। তাদের মধ্যে নুরুল আবছার সওদারকে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও তার ছেলে নুরুল আজিমকে কক্সবাজার সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য আবুল কালাম ও তারভাই আইয়ুব মো. ইকবাল এ হামলা চালায় বলে জানা গেছে।

স্থানীয় লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার বলেন, চকরিয়া উপজেলার ১৪৪টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মানের অংশ হিসেবে বুধবার সকালে আমজাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিজস্ব জায়গায় শহীদ মিনার নির্মান কাজ উদ্বোধন করতে আসেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ শামসুল তাবরীজ, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জনাব গুলশান আকতার ও উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আবু জাফর। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরতেই নির্মাণ কাজে বাঁধা দেন লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য আবুল কালাম ও তারভাই আইয়ুব মো. ইকবাল। পরে ইউএনও সৈয়দ শামসুল তাবরীজ বিষয়টি নিয়ে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং বাঁধা প্রদানকারি উভয় পক্ষের সাথে বৈঠকে বসেন। ওই বৈঠকে কাগজপত্র পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত হয় যে বাঁধা প্রদানকারী পক্ষের দাবিকৃত ডকুমেন্ট যথাযথ না হলেও বিরোধীয় ৯ শতক জায়গা বাদ দিয়ে অন্য জায়গায় শহীদ মিনার নির্মাণ কাজ উদ্বোধন হবে। এ সময় বাঁধা প্রদানকারিরা এই সিদ্ধান্তের ব্যাপারে প্রথমে রাজি হলেও পরে বেঁকে বসে।

ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার আরও বলেন, বৈঠক শেষে ইউএনও স্যারসহ অন্যান্যরা চলে আসার পর বাঁধা প্রদানকারিরা কোন জায়গায় শহীদ মিনার নির্মান করা যাবেনা বলে হুংকার দিয়ে জমির দাতা পক্ষের প্রতিনিধি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি নুরুল আবছার সওদাগর ও তার পুত্র নুরুল আজিমের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে তারা দুইজনই গুরুতর আহত হয়। ঘটনার পরপরই স্থাণীয় লোকজন আহত নুরুল আবছার সওদাগর ও তার ছেলে নুরুল আজিমকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে নুরুল আজিমের অবস্থার অবনতি ঘটনায় হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করেন। স্থানীয় এলাকাবাসী সরকারি সিদ্ধান্তে শহীদ মিনার নির্মাণ কাজে বাঁধা দানকারীদের উপযুক্ত শাস্তি চায় বলেও জানান ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার। ###

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category