বৃহস্পতিবার, ২১শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ বৃহস্পতিবার | ২১শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পেকুয়ায় জমি দখলে চৌকিদার মনসুরের সশস্ত্র বাহিনী

মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২০ | ১:২৮ অপরাহ্ণ | 430Views

পেকুয়ায় জমি দখলে চৌকিদার মনসুরের সশস্ত্র বাহিনী

কক্সবাজারের পেকুয়ার টইটংয়ে সাধারণ মানুষের জায়গা জমি দখলে নিতে সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তুলেছে চৌকিদার মনসুর। টইটংয়ে বিভিন্ন জনের জমি দখল করতে ব্যবহার হচ্ছে তার নেতৃত্বে গঠিত বাহিনী। সর্বশেষ উপজেলার টইটং ইনিয়নের সোনাইছড়ি মনু মিয়াজী ঘোনা এলাকায় সশস্ত্র দলবল নিয়ে জমি দখল করার বেশকিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। যা নিয়ে এলাকার সাধারণ মানুষের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, স্থানীয় মরহুম মাওলানা শামসুল আলমের নামে সোনাইছড়ি মনু মিয়াজী ঘোনা এলাকায় রেজিস্ট্রিকৃত কিছু জায়গা জমি নিয়ে তার ছেলেদের সাথে আপন ভাই নুরুল হুদার ছেলেদের সাথে নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো। যা নিয়ে ২০০৯ সাল থেকে আদালতে মামলা চলমান। এরপরও ওই জায়গার ১৪ শতক জমি স্থানীয় চৌকিদার মনসুরকে বিক্রির নামে অবৈধ দখলে নিতে নাটক সাজায় নুরুল হুদার ছেলে হামিদুল হক মানিক। তারই প্রেক্ষিতে ২০ ডিসেম্বর দুপুরে চৌকিদার মনসুর তার দল-বল নিয়ে সশস্ত্র হামলা চালায়। এমনকি ওই মনসুর রামদা ও কিরিচ দিয়ে মুবিনুল হক, জাহিন, নওশাদ, কপিলসহ বেশ কয়েকজনকে আহত করে। এ সময় তার বাহিনী মহিলাদের শ্লীলতাহানির চেষ্টাও করে। পরে ৯৯৯ কল দিলে পুলিশ আসলে তারা অস্ত্র শস্ত্র ফেলে পালিয়ে যায়।

এভাবে মনসুর ও তার বাহিনী প্রতিনিয়ত সাধারণ মানুষের জমি দখল করার অহরহ অভিযোগ রয়েছে।

ভুক্তভোগীরা বলছেন, মনসুর স্থানীয় টইটং ইউনিয়নের চৌকিদার হলেও সে এই পেশাকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে জায়গা জমি দখলে নিতে। এমনকি সে ইতিমধ্যে একটি বাহিনীও গঠন করেছে। তাকে এসব কাজে সহায়তা করছে মিজবাহ উদ্দিন বাহারসহ বিভিন্ন মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা।

বিষয়টি অস্বীকার করে মনসুর দাবী করেন, তিনি ঝগড়া থামাতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। একইসাথে রামদা নিয়ে ছবি ও বাহিনী গঠনের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

এবিষয়ে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) কানন সরকার বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

পেইজবুকে আমরা