শনিবার, ১৫ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১লা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
আজ শনিবার | ১৫ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ইন্দোনেশিয়া নিখোঁজ সাবমেরিনের ধ্বংসস্তূপ উদ্ধার

শনিবার, ২৪ এপ্রিল ২০২১ | ১২:২৪ অপরাহ্ণ | 48Views

ইন্দোনেশিয়া নিখোঁজ সাবমেরিনের ধ্বংসস্তূপ উদ্ধার

বিজয় নিউজ ডেস্কঃ

ইন্দোনেশিয়ার হারিয়ে যাওয়া সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার হল বালি সাগরে। শনিবার দেশের সেনাপ্রধান এই খবর জানিয়েছেন। অনুমান করা হচ্ছে ৫৩ জন ক্রুয়ের বাঁচার আশা অনেকটাই কমে গিয়েছে। কারণ শনিবারই তাঁদের অক্সিজেন শেষ হয়ে যাওয়ার কথা।

ইন্দোনেশিয়ার নৌসেনার চিফ অফ স্টাফ জানিয়েছেন ডুবোজাহাজটি যতখানি পর্যন্ত যেতে পারে তার সীমা ছাড়িয়ে ৮৫০ মিটার (২ হাজার ৭৮৮ ফুট) নিচে তাকে পাওয়া গিয়েছে। টর্পেডো ড্রিল চালানোর জন্য তৈরি হওয়া এই সাবমেরিনটি ৫০০ মিটার (১ হাজার ৬৪০ ফুট) গভীর পর্যন্ত যেতে পারত। বুধবার সাবমেরিনটি নিখোঁজ হয়। এরপর তার খোঁজে ভারত ডিপ সাবমারজেন্স রেসকিউ ভেসেল পাঠায়। এছাড়া ইন্দোনেশিয়ার KRI Singa-651 এবং KRI Oswald Siahaan-354-ও সাবমেরিনের খোঁজে নিযুক্ত হয়। তল্লাশির পর সমুদ্রের গভীরে পাওয়া যায় সাবমেরিনটি।

ভারতীয় নৌবাহিনীর তরফে জানানো হয়, ‘২১ এপ্রিল ইন্টারন্যাশনাল সাবমেরিন এস্কেপ এবং রেসকিউ লিয়াসিয়ন অফিসের তরফে আমাদের নৌবাহিনীকে সাহায্য করার জন্য একটি বার্তা পাঠানো হয়। সেখানে বলা হয়, ৫৩ জনকে নিয়ে কেআরআই নাঙ্গালা নামের একটু ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিনটি নিখোঁজ হয়ে গিয়েছে। সেটি বালিদ্বীপের ২৫ মাইল উত্তরে কাজ করছিল। কাজ চলাকালীনই সেটি নিখোঁজ হয়ে গিয়েছে। একে খুঁজতে সাহায্য করতে হবে।

প্রসঙ্গত, সাবমেরিন রেসকিউ টিম তখনই দরকার পড়ে যখন কোনও সাবমেরিন হারিয়ে যায় এবং সেই জলযান ও তার মধ্যে আটকে থাকা মানুষদের উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে উদ্ধার করা যায়। ভারতীয় নৌবাহিনীর ডিপ সাবমারজেন্স রেসকিউ ভেসেল সমুদ্রের ১০০০ মিটার গভীর পর্যন্ত কোনও বস্তুকে খুঁজতে সক্ষম। সাবমেরিন নিখোঁজ হওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ভারতের এই জলযান রওনা দেয়। সাবমেরিন রেসকিউ ভেহিকল দ্রুত কোনও কিছুর দরকার পড়লে তা পৌঁছে দিতেও সাহায্য করে থাকে। প্রসঙ্গত ভারত হল সেই কয়েকটি দেশের মধ্যে পড়ে যারা সমুদ্রের অতলে নিখোঁজ হয়ে যাওয়া যে কোনও সাবমেরিনকে খুঁজে আনতে পারে।

-Advertisement-
Recent  
Popular  

Our Facebook Page

-Advertisement-
-Advertisement-