সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
আজ সোমবার | ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চকরিয়ায় যৌতুকের দাবীতে স্বামীর নৃশংসতার স্ত্রী মেরী আহত

রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১ | ১১:৪৩ অপরাহ্ণ | 176Views

চকরিয়ায় যৌতুকের দাবীতে স্বামীর নৃশংসতার স্ত্রী মেরী আহত
আহত গৃহবধূ রোকিয়া সুলতানা মেরী

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় যৌতুকের দাবীতে পাষন্ড স্বামীসহ শশুর বাড়ির লোকজন রোকিয়া সুলতানা মেরী (২৫) নামের এক গৃহবধুকে মারধর করে গুরুতর জখম করার অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতনের  শরীর জুড়ে আঘাতের চিহ্ন আর হাতের ব্যথা নিয়ে চিকিৎসাধীন আছেন এই গৃহবধূ।

গত শনিবার (২৪ জুলাই) রাতে উপজেলা ডুলাহাজারা ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ডে নতুন পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা নিতে এসে দ্বিতীয় দফায় হামলা চালায় ডুলাহাজারা ইউনিয়নে ৮নং ওয়ার্ডে নতুন পাড়া এলাকায় নুরুল আলম মনু ছেলে গৃহবধূরের স্বামী নুরুল হক (৩২) পৌরসভা ৫নং ওয়ার্ডের নুর মোহাম্মদের ছেলে মোঃ মিজান, নুরুল আজিমসহ ১০/১৫ জন সন্ত্রাস বাহিনী। এসময় হামলায় আহত হয়েছেন গৃহবধূর বড় ভাই মাষ্টার বশির আহমদ, বোন জোৎসনা আক্তার, পারভিন আক্তার।

গৃহবধূর বড় ভাই মাষ্টার বশির আহমদ বলেন, উপজেলা ডুলাহাজারা ইউনিয়নের নতুন পাড়া গ্রামের মনুর ছেলে নুরুল হকের সাথে পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন খুটাখালী ইউনিয়নে আবু তালেব এর মেয়ে আমার ছোট বোনের সাথে বিগত ২০১৭ সালে বিয়া হয়। বোনের সুখের কথা চিন্তা করে বিয়ের সময় ছাড়াও বিভিন্ন সময় নানা অজুহাতে যৌতুক হিসেবে নুরুল হককে একাধিক টাকা প্রদান করা হয়।
সময়ের ব্যবধানে যৌতুকলোভী স্বামী নুরুল হক দফায়-দফায় আরোও যৌতুকের দাবীতে মেরী প্রতি অমানুষিক শারিরীক নির্যাতন শুরু করে। 

এবিষয়ে বিভিন্ন সময়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সালিশ মীমাংসা করেন। তবুও মেরী প্রতি নির্যাতন থাকে অব্যাহত। স্বামীর এমন নিষ্ঠুর অত্যাচার সইতে না পেরে কয়েক মাস পূর্বে মেরী তার বাপের বাড়ি চলে আসেন। এরপর গত কয়েকদিন পূর্বে শ্বশুর বাড়ির লোকজন এসে আবার মেরী স্বামীর বাড়ি তে ফিরিয়ে নিয়ে যান।

গত শনিবার গভীর রাতে ঘুমের ঘরে স্বামী নুরুল হক  স্ত্রীকে খুন করার উদ্দেশ্যে লাটি দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটাতে থাকেন। এ সময় মেরী চিৎকারে আশপাশের লোকজন ডুলাহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল  আমিনকে খবর দিলে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে মেরী বাপের বাড়ির লোকজনকে খবর দিয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে তুলে দেন। ওই দিনের পর শারীরিক মেরী অবস্থা অবনতি হলে রাতে ৮টায় দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গিলে স্বামী নুরুল হকের নেতৃত্বে কয়েকজন সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে দ্বিতীয় দফায় হামলায় চালায়।

এব্যাপারে গৃহবধূ রোকিয়া সুলতানা মেরী অভিভাবক মহল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানান।

-Advertisement-
Recent  
Popular  

Our Facebook Page

-Advertisement-
-Advertisement-